Menu Close
blog adsense approval tips bangla 2021
আমরা কমবেশী অনেকে ব্লগিং সম্পর্কে জানি অথবা শুনেছি, অনেকে আবার ব্লগিং নিয়ে কাজ করছি। তবে, ব্লগিং শুরু করার পর থেকে সবার একটাই উদ্দেশ‌্য থাকে যে, যেভাবেই হোক ব্লগে গুগল অ‌্যাডসেন্স অ‌্যাপ‌্রুভ করানো। তো এক্ষেত্রে তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে আমরা অনেক ছোটখাট কিছু ভুল করে ফেলি। যার ফলে আমাদের অ‌্যাডসেন্স অ‌্যাপ‌্রুভালের জন‌্য আবেদন করার পর কিছুদিন পর রিপ্লে আসে যে গুগল অ‌্যাডসেন্স রিজেক্ট করে দেয়। অর্থ‌্যাৎ আমাদের আবেদনটি অ‌্যাপ‌্রুভ করে না গুগল। এত কষ্ট করার পর যখন একজন ব্লগার দেখে যে তাঁর ব্লগে অ‌্যাডসেন্স অ‌্যাপ‌্রুভ হয় নাই।
তখন বেশীরভাগ মানুষ হতাশ হয়ে যায়। এবং ব্লগিং নিয়ে কাজ করার আগ্রহ হারিয়ে ফেলে। তো এই পোষ্টটা সেই সকল হতাশাগ্রস্থ লোকদের জন‌্য, যারা তাদের ব্লগে অ‌্যাডসেন্সের জন‌্য আবেদন করে  বহুবার রিজেক্ট খাইছেন। এবং হতাশ হয়ে ব্লগে লেখালেখি করা বন্ধ করে দিয়েছেন। তো বেশি কথা না বলে যে যে পদ্ধতিসমূহ অনুসরণ আমরা খুব সহজেই ব্লগে গুগল অ‌্যাডসেন্স অ‌্যাপ‌্রুভাল করাতে পারি সেগুলো জেনে নেই।
১) ইউনিক ও মানসম্পন্ন এবং তথ‌্যসমৃদ্ধ আর্টিকেল
ইউনিক ও মানসম্পন্ন এবং তথ‌্যসমৃদ্ধ আর্টিকেল কে তালিকার প্রথমে রাখার কারণ, একটি ব্লগের প্রাণ হল ইউনিক ও মানসম্পন্ন এবং তথ‌্যসমৃদ্ধ আর্টিকেল। কারণ আপনার ব্লগে যখন ইউনিক ও মানসম্পন্ন এবং তথ‌্যসমৃদ্ধ আর্টিকেল থাকবে, তখন গুগলের কাছে আপনার ব্লগের মান বেড়ে যাবে। তখন গুগল নিজেই আপনার ব্লগকে রেংকে নিয়ে আসবে। এবং আপনি যে বিষয় নিয়ে ব্লগ লিখেন কোন পাঠক যদি
আপনার ব্লগ পড়তে এসে তাঁর যে বিষয় সম্পর্কে জানা প্রয়োজন সেটি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ‌্য পেয়ে যায়, তাহলে সে পাঠক আপনার ব্লগটি ফলো করে রাখবে।
সেক্ষেত্রে আপনি কোন নতুন পোষ্ট করার পর যারা যারা আপনার ব্লগ ফলো করে রেখেছিল তাদের সকলের কাছে নোটিফিকেশন চলে যাবে। এবং তাঁরা বুঝতে পারবে যে আপনার ব্লগে নতুন কোন পোষ্ট করা হয়েছে। এভাবে আপনি আপনার ব্লগে ভাল একটি ট্রাফিক জেনারেট করতে পারবেন। তাই আমি বলব খুব সহজেই ব্লগে গুগল অ‌্যাডসেন্স অ‌্যাপ‌্রুভাল পেতে হলে আপনাকে আপনার ব্লগে ইউনিক ও মানসম্পন্ন এবং তথ‌্যসমৃদ্ধ আর্টিকেল লিখতে হবে। আর অবশ‌্যই ব্লগে সর্বনিম্ন  ২০-৩০ টা এবং সর্বনিম্ন ৫০০-১০০০ শব্দের  আর্টিকেল থাকতে হবে।
২) ব্লগে কাস্টম ডোমেইন নেইম অ‌্যাড করা
আপনি যদি চান যে আপনার ব্লগটিও অন‌্যান‌্যদের মত জনপ্রিয় হবে তাহলে অবশ‌্যই আপনাকে ব্লগে কাস্টম ডোমেইন অ‌্যাড করতে হবে। এবং যদি কাস্টম ডোমেইনটি এক শব্দের হয় তাহলে আরো ভাল,
এক শব্দের হওয়ায় যে কেউ সহজেই আপনার ব্লগের নাম মনে রাখতে পারবে। এবং একটি কাস্টম ডোমেইন ব্লগে অ‌্যাড করা থাকলে গুগল সে ব্লগটিকে গুরুত্ব দেয় বেশী। তাই খুব সহজে কম সময়ের মধ‌্যে ব্লগে গুগল অ‌্যাডসেন্স অ‌্যাপ‌্রুভাল পেতে হলে ব্লগে অবশ‌্যই কাস্টম ডোমেইন অ‌্যাড করা থাকতে হবে।
৩) ব্লগ কাস্টমাইজেশন অর্থ‌্যাৎ সাজানো
আপনার ব্লগে গুগল অ‌্যাডসেন্স অ‌্যাপ‌্রুভালের জন‌্য আবেদন করার আগে, অবশ‌্যই ব্লগটি খুব সাধারণ ভাবে সাজানো গোছানো থাকতে হবে। যাতে আপনার ব্লগে কোন পাঠক কোন বিষয় সম্পর্কে জানতে এসে আপনার ব্লগের ডিজাইন দেখে বিরক্ত না হয়। এবং অপ্রয়োজনীয় কোন ফিচার ব্লগে না রাখা যেটা দেখে পাঠকরা বিরক্ত হন। ব্লগের ডিজাইন সবসময় খুবই সাধারণ ও সুন্দর রাখতে হবে। এবং ব্লগের
গুরুত্বপূর্ণ  সেটিংস সমূহ অবশ‌্যই যথাযথভাবে সম্পন্ন করতে হবে।
এবং সেই সাথে ব্লগের ফুটার সেকশনে অ‌্যাবাউট, কন্টাক্ট, ডিসক্লেইমার, প্রাইভেসি পলিসি অবশ‌্যই এই ৪টি পেইজ অ‌্যাড করতে হবে। এবং আপনি যে যে বিষয়ের উপর ব্লগ লিখেন সেই বিষয়গুলো ব্লগের মেনুবারে অ‌্যাড করতে হবে। মূল কথা হল আপনার ব্লগটি দেখতে প্রফেশনাল ব্লগের মত হতে হবে।
৪) সাইটম‌্যাপ জেনারেট এবং গুগল সার্চ কনসোলে পোষ্ট ইনডেক্স করা
সাইটম‌্যাপ জেনারেট এবং গুগল সার্চ কনসোলে পোষ্ট ইনডেক্স এই কাজটি না করলে, আপনি কখনো ব্লগে গুগল অ‌্যাডসেন্স অ‌্যাপ‌্রুভাল পাবেন না। সাইটম‌্যাপ জেনারেট এবং গুগল সার্চ কনসোলে পোষ্ট ইনডেক্স না হলে কেউ আপনার ব্লগটি গুগলে সার্চ করে পাবে না। তাই অবশ‌্যই সাইটম‌্যাপ জেনারেট এবং গুগল সার্চ কনসোলে পোষ্ট ইনডেক্স সঠিকভাবে করতে হবে। এবং অবশ‌্যই লক্ষ‌্য রাখতে হবে যে সর্বনিম্ন ১০-১২ টা পোষ্ট যাতে গুগলে ইনডেক্স থাকে।
এই পদ্ধতিগুলো ফলো করলে অবশ‌্যই খুব সহজে আপনি ব্লগে গুগল অ‌্যাডসেন্স অ‌্যাপ‌্রুভাল পেয়ে যাবেন। এবং সেটা প্রথমবার আবেদন করার পর। তবে অবশ‌্যই এই পদ্ধতিগুলোর পাশাপাশি গুগল অ‌্যাডসেন্সের পলিসি বিরোধী কোন কাজ করা যাবে না। তাহলে, আপনার জন‌্য ব্লগে গুগল অ‌্যাডসেন্স অ‌্যাপ‌্রুভাল পাওয়া কষ্টকর ব‌্যাপার হয়ে যাবে। পরিশেষে একটা কথা বলব গুগলের নিয়ম মেনে কাজ করলে, অবশ‌্যই খুব সহজে আপনি আপনার ব্লগে গুগল অ‌্যাডসেন্স অ‌্যাপ‌্রুভাল পেয়ে যাবেন খুব সহজেই এবং খুব কম সময়ের মধ‌্যেই।
আশা করি পোষ্টটি পড়ে কিছুটা হলেও উপকৃত হয়েছেন। নতুন পোষ্ট পেতে অবশ‌্যই আমাদের ওয়েবসাইটিকে ফলো করে রাখবেন। পোষ্টটি সম্পর্কে কমেন্টে আপনার মূল‌্যবান মতামত জানাতে ভুলবেন না। পোষ্টটি পড়ার জন‌্য আপনাকে ধন‌্যবাদ।

অন্যান্য পোস্টসমূহঃ

error: Content is protected !!