Menu Close

পেটের জ্বালায়

শফি আলম


শীতের ভয়ে খাদ্য নিয়ে পিঁপড়ে লুকায় গর্তে ,

মানুষ নামে ঠাণ্ডা জলে তখন মাছ ধরতে।

টেংরা শিঙ্গির কাটার ঘায়ে ফুটো হয় পা হাত,

তবুও চায় মাছ বেচে যোগাড় করতে ভাত।

 

ভাতের জ্বালা বড় জ্বালা জ্বলতে থাকে পেটে,

ঠাণ্ডা গরম তুচ্ছ করে গরিব মরে খেটে।

পেটের জ্বালায় পাগল মানুষ সপ্ত সাগর সেচে,

কেউ বা আবার দেহ বাঁচায় দেহটাকেই বেচে।

লেবাস ধরেও কেউ কেউ হারিয়ে বিবেক হুঁশ ,

” পেটের ” জ্বালায় লজ্জা ভুলে খায় সুদ ঘুষ।

 

এই ” পেটটা ” যে অনেক বড় মাপজোক নাই,

এই ” পেটটা ” গিলতে পারে পুরো জগত্টাই।

ধর্মকে কেউ বেসাত বানায় ওই পেটের জ্বালায়,

পেটের ক্ষুধা চাগাল দিলে পাপ-চিন্তা পালায়।

সব জ্বালা সওয়া যায় ওই পেটের জ্বালা বাদে,

শিশু , যুবা , বুড়ো সবাই পেটের জ্বালায় কাঁদে।

পেটের জ্বালা মেটে নাকো শুনে মহান বাণী,

পেটের জ্বালা মেটায় শুধু খানা , দানা , পানি।

 

তথ্যসূত্রঃ


১। আরো গল্প পরতে ভিজিট করুন

অন্যান্য পোস্টসমূহঃ

error: Content is protected !!