Menu Close

ফেসবুক মার্কেটিং টিউটোরিয়ালঃ

আশাকরি সবাই ভালো আছেন। আজকে এই পোস্ট টি তাদের জন্য যারা ফেসবুক মার্কেটিং করছেন। আজকে ফেসবুক মার্কেটিং এর কিছু টপ সিক্রেট বলব যার মাধ্যমে আপনারা যারা ফেসবুক মার্কেটিং করছেন তারা তাদের কাস্টমার বাড়াতে পারবেন এবং সেল আগের থেকে অনেক বেশি বাড়াতে পারবেন। তো চলুন শুরু করা যাক-

facebook marketing, ফেসবুক মার্কেটিং টিউটোরিয়ালপ্রথমত আমরা যারা ফেসবুক এ প্রোডাক্ট সেল করি তারা প্রোডাক্টের আ্যড চালানোর সময় প্রোডাক্টের ইমেজ এর নিচে এর দাম লিখে দি।
না এটা করবেন না।কারন আপনি যদি নিজের ইনবক্স এ নিয়ে কথা বলতে পারেন তাহলে প্রোডাক্ট সেল হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। কারন একটা উদাহরণ এর মাধ্যমে বলি। ধরুন আপনার আ্যড টি দেখে একজন লোক ঠিক করল যে প্রোডাক্টি কিনবে কিন্তু তার দাম দেখে একটু বেশি মনে হলো তাই সে আর নক দিলোনা বা আন্য কোথাও একই প্রোডাক্ট এর দাম একটু কম দেখেছে তাই নিচে একটা উল্টো পাল্টা কমেন্ট করে গেল। এবার যারা ওই কমেন্ট টি দেখবে সবাই কিন্তু আপনার প্রোডাক্ট সম্পর্কে নেগেটিভ চিন্তা ভাবনা করবে।আর আপনি যদি প্রোডাক্টের দাম না লিখেন তাহলে যারা যারা ওই প্রোডাক্ট এর উপর আগ্রহী হবে তারা সবাই আপনাকে ইনবক্স নক দিবে। আপনি একদম সুন্দরভাবে তাদের সাথে কথা বলে প্রোডাক্ট সেল দিতে পারবেন। তবে এতে একটু কষ্ট বেশি হবে কিন্তু সেল আগের থেকে বাড়বেই।

আপনি একটা জিনিস দেখেছেন আমরা যখনই দোকান এ কোন জিনিস কিনতে দোকানে যাই আমরা সেই দোকানটাতে যেখান থেকে আগেরবার ওই জিনিসটা কিনেছি। তো আপনি যখন কারো কাছে কোন জিনিস সেল করবেন তখন তার ডিটেইলস যেমন নাম্বার, ইমেইল এড্রেস নিয়ে রাখবেন এগুলো সব একটা গুগল সিট বা Exel-shit এ রাখবেন এতে আপনার ঝামেলা ও কম হবে আর যখনই আপনার কাছে নতুন একটা প্রোডাক্ট আসবে আপনি তাকে চট করে একটা ইমেইল বা মেসেজ এর মাধ্যমে জানিয়ে দেবেন।যেহুতু আপনার থেকে আগে একটা প্রোডক্ট নিয়েছে তাই আপনার উপর একটা ভরসা আছে এবং তার প্রোডাক্টি কেনার একটা চান্স থাকে।

যাদের কাছে আপনি এর আগে প্রোডাক্ট সেল করেছেন ফেসবুক মার্কেটিং এর মাধ্যমে তাদের নিয়ে একটা ফেইসবুক গুরুপ তৈরি করে নিবেন। এতে করে হবে কি আপনার ও তাদের মধ্যে একটা কমিউনিটি তৈরি হবে এবং তাদের রুচি সম্পর্ক আপনার একটা ধারনা চলে আসবে এবং তাদের চাহিদা মত প্রোডাক্ট আপনি সেল করতে পারবেন। কারন একজন ভালো বিক্রেতা হতে গেলে তাকে ক্রেতার চাহিদাটা বুঝতে হয়।আর তার আগে আপনার কাছ থেকে প্রোডাক্ট কিনেছে যার ফলে আপনার উপর তাদের একটা আস্তা আছে। তাই আপনি আপনার গুরুপে পোস্ট করেও প্রোডাক্ট সেল করতে পারবেন। একটা জিনিস দেখুন পেইজে লাইক বাড়ানোর চাইতে কিন্তু গুরপে মেম্বার বাড়ানো সহজ।

আমরা যারা ফেসবুক মার্কেটিং করি অনেকেই আছি পেইজে একটা পোস্ট করার আধঘন্টা বা অনেকে একদিন পরেও সেই পোস্ট টা সেয়ার করি। না এরকম না করে পোস্ট করার সাথে সাথে সব জায়গায় সেয়ার করতে হবে কারন পোস্ট করার প্রথম ১০ মিনিট বা ২০ মিনিট সময়ের মধ্যে যত বেশি লোকের কাছে পোস্টটি পৌছায় ফেসবুক এ্যলগরিদম ভাবে ওই পোস্টে টি গুরুত্বপূর্ণ ফলে আরো বেশি লোকের সামনে দেখায়। আর একটা আ্যড যত বেশি লোকের সামনে দেখাবে ততো বেশি সেল হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

আর সবার শেষে বলব একটা ব্যবসা করতে হলে আপনাকে সৎ হতে হবে। আর সেটা ফেসবুক মার্কেটিং এর বেলায় আরো বেশি। কারন মানুষ এখন অনলাইনে প্রোডাক্ট কিনে অনেক ঠকছে। তাই আপনি যদি আপনার কাস্টমারকে ভালো সেবা দিতে পারেন তাহলে আপনার সফলতা কেউ ঠেকাতে পারবে না।

অন্যান্য পোস্টসমূহঃ

error: Content is protected !!