Menu Close

এইচটিএমএল (HTML):

ব্লগ সাইট বা ওয়েবসাইট সম্পর্কে আমরা হয়তো বা কমবেশি সবাই জানি । আমরা অনেকেই হয়তো বা এও জানিয়েছে ওয়েবসাইট তৈরি করার মূল উপাদান টি হচ্ছে  HTML । HTML দিয়ে মূলত ডকুমেন্টে স্ট্রাকচার তৈরি করা হয় । এটার সাহায্যে ব্রাউজার কিভাবে ডকুমেন্ট প্রদর্শন করবে তার নির্দেশনা দেওয়া থাকে ।

HTML এর পূর্ণরূপ হল “hypertext markup language” । এটি মূলত ওয়েবসাইট তৈরি করার মার্কআপ ল্যাংগুয়েজ । আর এইচটিএমএল দ্বারা তৈরি করা ফাইলগুলোকে মূলত ওয়েব সাইট হিসেবে পরিচিত । একটি ওয়েবসাইটের মূল গঠন বা স্ট্রাকচার তৈরি করা হয় এইচটিএমএল এর মাধ্যমে । আরও সহজভাবে বললে এইচটিএমএল এমন একটি ভাষা যেটার সাহায্য একটি ওয়েব এর ডকুমেন্টের গঠন, বিষয়বস্তু অবস্থান এবং অভ্যন্তরীণ তথ্য নিয়ন্ত্রণ করে । HTML মূলত কতগুলি মার্কআপ ট্যাগ এর সমষ্টি । HTML ব্যবহার করে প্রোগ্রামাররা ওয়েব পেজে ভিডিও, অডিও ,এনিমেশন এবং স্থির চিত্র ও বিভিন্ন ডকুমেন্ট সুন্দরভাবে উপস্থাপন করে । HTML কোন প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ নয় । এটি মূলত স্ক্রিপ্ট ল্যাঙ্গুয়েজ । এই ধরনের ল্যাঙ্গুয়েজ কে ব্যবহার করেন মূলত ওয়েবপেইজের ডকুমেন্ট স্ট্রাকচার নির্দেশ করা হয় । এটি প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজের চাইতেও অনেক সহজ ।

ইতিহাস এবং আবিষ্কারঃ

১৯৮৯ সালে ব্রিটিশ বিখ্যাত কম্পিউটার বিজ্ঞানী বার্নার্স লি । তিনি একটি ইন্টারনেটভিত্তিক হাইপারটেক্সট প্রস্তাবের একটি মেমো প্রদর্শন করেন । ১৮৯০ তিনি ব্রাউজার এবং সার্ভারে এইচটিএমএল এর উল্লেখ করে ‌।

 W3C প্রথম ডেভলপকৃত HTML 3.0 প্রকাশিত হয় ১৯৯৭ সালে । একই বছর আবার ডিসেম্বর মাসের শেষের দিকে প্রকাশিত হয় HTML 4.2 . HTML5  সর্বশেষ সংস্করণ ।

 HTML এর মূল বিষয়বস্তুঃ

যেকোনো টেক্সট এডিটর সফটওয়্যার এর মাধ্যমে এইচটিএমএল ডকুমেন্ট তৈরি করা সম্ভব । এই সকল টেক্সট এডিটরে ওয়েবপেইজের নিয়মমাফিক টেক্সট তৈরি করার ডকুমেন্টই এইচটিএমএল ডকুমেন্ট ‌। HTML ডকুমেন্ট তৈরি করার জন্য যে সকল টেক্সট এডিটর ব্যবহার করা হয় তার মধ্যে জনপ্রিয় কিছু টেক্সট এডিটর এর নাম হলো notepad, WordPad, fornt page এছাড়াও আরো ইত্যাদি রকমের সফটওয়্যার পাওয়া যায় । টেক্সট এডিটরে এইচটিএমএল ফাইল লিখবার পড়ে সেটি ফোল্ডারে HTML লিখে একটি নির্দিষ্ট জায়গায় সংরক্ষণ করতে হবে ।

 ট্যাগঃ

কোড লেখার পূর্বে এবং পরে কিছু চিহ্ন যুক্ত সহ নির্ধারিত কিছু শব্দ ব্যবহার করা হয় যাকে ট্যাগ বলে । এইচটিএমএল এর ট্যাগ গুলো <> এই চিহ্ন দিয়ে শুরু এবং শেষ করা হয় । আর এই চিহ্ন যুক্তভাব  ট্যাগ না লেখা হয় তাহলে ব্রাউজার বুঝতে সক্ষম হবে না । এইচটিএমএল দিয়ে তৈরিকৃত কোন ওয়েব পেজের প্রধানত দুটি অংশ থাকে ।

 

  • হেড সেকশন

  • বডি সেকশন

 

Head section  এ ওয়েবপেইজের শিরোনাম লেখা হয় ।

Body section এ ওয়েবপেইজের সকল কনটেন্ট লেখা হয় ।

এইচটিএমএল ট্যাগ শুরু হয় <> এই চিহ্ন দিয়ে এবং শেষ হয় <\> এই চিহ্ন দিয়ে । এইচটিএমএল ট্যাগ প্রধানত দুই প্রকার

 

  • কনটেইনার

  • এম্পটি ট্যাগ

কন্টেইনার ট্যাগ গুলো হলঃ <b> <\b>.  <i><\i>   <b><\b> ইত্যাদি ।

এম্পটি ট্যাগ গুলো হলোঃ <br>  <hr>  <img> ইত্যাদি ।

বিভিন্ন কোডঃ

হেডিং ট্যাগঃ হেডিং ট্যাগ মূলত <h1> থেকে <h6> পর্যন্ত লেখা হয় । <h1>সবচেয়ে বড় এবং< h6>সবচেয়ে ছোট ।

অনুচ্ছেদ ট্যাগঃ অনুচ্ছেদ ট্যাগ আরম্ভ হয়<p> দিয়ে এবং শেষ হয় <\p> দিয়ে ।

এইচটিএমএল টেবিলঃ এইচটিএমএল করে টেবিল তৈরির জন্য চারটি ট্যাগ ব্যবহার করা হয় ।

<tr> এটা দিয়ে table row তৈরি  করা হয়

<th>এটা দিয়ে table header তৈরি  করা হয়

<td>এটা দিয়ে table data তৈরি করা হয়

এছাড়াও আরও অনেক ধরনের ট্যাগ ব্যবহার করা হয় এইচটিএমএল এ ।

 

এইচটিএমএল এর সুবিধাঃ

  • এইচটিএমএল ট্যাগ মনে করে সহজে কেউ ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারে।

  • যেকোনো টেক্সট এডিটর সফটওয়্যার দিয়ে html-এর ট্যাগ লেখা যায়

  • এটি শেখায় এবং ব্যবহার করার পদ্ধতি খুবই সহজ

  • অধিকাংশ ব্রাউজারই সাপোর্ট করে

  • পেজের সাইজ কম হওয়ায় হোস্টিং স্পেস কম লাগে , তাই এটা খরচ সাশ্রয়

এইচটিএমএল অসুবিধাঃ

  • সাধারণ এবং কোন ছোট ওয়েব পেজ লিখতে গেলে অনেক কোড ব্যবহার করা লাগে ।

  • শুধুমাত্র স্ট্যাটিক ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় ।

তথ্যসূত্রঃ

১। এইচটিএমএল

২। w3schools

অন্যান্য পোস্টসমূহঃ

error: Content is protected !!