Menu Close

সিএসএস (CSS)  এর পূর্ণরূপ হল cascading style sheets । সিএসএস এমন একটি ভাষা যা এইচটিএমএল এর স্টাইল বর্ণনা করে। এইচটিএমএল এবং সিএসএস সব সময় একসাথে ব্যবহার করা হয়। সিএসএস এর জনক হলো Hakon Wium Lie । ১৯৯৪ সালের ১০ ই অক্টোবর তিনি সর্বপ্রথম সিএসএস আবিষ্কার করেন।

সিএসএস এর সংজ্ঞাঃ

সিএসএস হলো একটি ল্যাঙ্গুয়েজ যা এইচটিএমএল ডকুমেন্টকে অনেক সুদর্শনীয় করে তোলে। html-এর যেমন বিভিন্ন ট্যাগ ব্যবহার করা হয় তেমন , <h1> Header tag , <p> paragraph tag সহ সকল ধরনের ট্যাগ কে  সুন্দরভাবে উপস্থাপন করাই সিএসএস এর মূল কাজ । ওয়েবসাইটের এইচটিএমএল এর উপাদান গুলো সুন্দর ভাবে নিয়ন্ত্রণ করে সিএসএস । 

CSS কাজঃ

এটির মূল কাজ হলো ওয়েবসাইটেকে আকর্ষণীয় ও সুন্দর ভাবে উপস্থাপন করা । এক কথায় একটি সুন্দর ভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য সিএসএস অবশ্যই শিখতে হয় । এছাড়াও মে কোন টেক্সটকে কালার করা সহ ব্যাকগ্রাউন্ড কালার করা সবকিছু করা যায় এই সিএসএস এর মাধ্যমে । টেক্সট সাইজ ছোট করা বা বড় করা,  আকার পরিবর্তন করা । ওয়েবসাইটের ফোন কন্টাক্ট কোন জায়গায় থাকবে কোন মেনু কোন জায়গায় থাকলে একই রকম আকারে থাকবে এগুলো সি এস এসে এর মাধ্যমে করা হয় । এর সাহায্যে এনিমেশন তৈরী করতে পারবেন । ওয়েব ডিজাইনার হতে হলে অবশ্যই সিএসএস জানতে হয় । 

ওয়েবসাইট সিএসএস এর মাধ্যমে ডিজাইন করে ওয়েব সাইটে আরো উন্নত মানের এবং আরও জনপ্রিয় করে তোলা যায়। মার্কেটপ্লেসে জনপ্রিয়তা অর্জন করার জন্য সিএসএস শিখে ওয়েবসাইট ডিজাইন করা খুবই প্রয়োজনীয়। 

CSS কত প্রকারঃ

সিএসএস কত প্রকার বলতে বোঝানো হয়েছে শেষ কোড কয় ভাবে লেখা যায় । সিএসএস মূলত তিন ভাবে লেখা হয়।

  • ইন লাইন সিএসএস
  • ইন্টার্নাল সিএসএস
  • এক্সটার্নাল সিএসএস

ইন লাইন সিএসএসঃ ইনলাইন সিএসএস কোড লেখার জন্য এইচটিএমএল কোড এর ভিতরে স্টাইল নামে একটি এট্রিবিউট নিয়ে তার মধ্যে সিএসএস কোড লেখা হয়ে থাকে । যেমন,

<h1 style = “color : red; font-size: 25px”> this is a heading <h1> 

 

ইন্টার্নাল সিএসএসঃ ইন্টার্নাল সিএসএস কোড লিখতে হবে আমাদের অবশ্যই এইচটিএমএল হেড ট্যাগ এর ভিতরে স্টাইল নামে ট্রাক নিয়ে সিএসএস কোড লিখতে হবে । যেমন

<head>

<Style>

body {background : #fff000 ; }

h1 {colour : blue ; font-size : 30px }

</Style>

</head>

 

এক্সটার্নাল সিএসএসঃ ইন্টার্নাল সিএসএস কোড কিভাবে লেখা হয় এক্সটার্নাল সিএসএস কোড ঠিক সেরকম ভাবে লেখা হয়ে থাকে । শুধু পার্থক্য হল ইন্টার্নাল সিএসএস কোড লেখার জন্য নতুন একটি সিএসএস ফাইল খুলতে হয় । এই সিএসএস ফাইল এর ভিতর সিএসএস কোড লেখা হয় । যেমন

<head>

<link rel=”stylesheet” type = text/css” href=”style.css”>

</head>

 

CSS এর ফাইল গঠনঃ

সিএসএস ফাইল তৈরি করা খুবই সহজ । এটা অনেকটা এইচটিএমএল এর মত । কম্পিউটার এ যেকোন নোটপ্যাড এ গিয়ে সিএসএস কোড লেখার পর । ফাইলটি সেভ করার সময় ফাইলটি রান নামের শেষে .CSS  লিখে ফাইলটি সেভ করতে হবে তাহলেই কম্পিউটার বুঝতে পারবে এটি একটি সিএসএস ফাইল । তারপর ডকুমেন্টটি যেকোনো ব্রাউজার দিয়ে রান করাতে ওয়েবসাইট আকারে প্রদর্শন করবে। 

CSS কোথায় থেকে শিখবেনঃ

সিএসএস শেখার জন্য নির্দিষ্ট কোন কোচিং সেন্টারে যাবার প্রয়োজন নেই । এটি আপনি বাড়িতে বসে বিভিন্ন এপ্লিকেশন বা সফটওয়্যার আছে । যেগুলো ইন্সটল করে আপনি খুব সহজে বাড়িতে বসে সিএসএস শেখা যায় । ইউটিউবে নানারকম সিএসএস সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে আলোচনা করা সেখান থেকে আপনি শেষের শিখতে পারেন । 

যতটুকু শিখবেন ততটুকু কোড প্র্যাকটিস করা প্রয়োজন । না হলে সিএসএস সম্পূর্ণভাবে আত্ম করতে পারবেন না ।

তথ্যসূত্রঃ

 

অন্যান্য পোস্টসমূহঃ

error: Content is protected !!